১০ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার মহান ১০ মুহাররম , আহলে বায়তে রাসূল (দ.) ও শাহাদতে কারবালা স্মরণে আজিমুশশান মাহফিলে নূরানী শীর্ষক আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিল হারুয়ালছড়ি দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীন পীরে ত্বরীক্বত হযরতুল আল্লামা মাওলানা শামসুদ্দীন মুহাম্মদ জাফর ছাদেক আল আহাদী (ম.)’র সভাপতিত্বে, মাওলানা মুহাম্মদ নুরুল আবছার হারূনীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান আলােচক ছিলেন আল হারূনী রিচার্স একাডেমির চেয়্যারম্যান হযরতুল আল্লামা শাহযাদা মাওলানা সৈয়্যদ বোরহান উদ্দীন মুহাম্মদ শফিউল বশর (ম.), অন্যান্যদের মধ্যে আলােচনা করেন, কোলাগাঁও গাউসিয়া তৈয়্যবিয়া দাখিল মাদ্রাসার মুদাররিস মাওলানা নূর হুসাইন হারূনী (ম.) ও পাঠানদণ্ডী তাহেরিয়া সাবেরিয়া সুন্নিয়া আলিম মাদ্রাসার আরবি প্রভাষক মাওলানা মকসুদুর রহমান আল হারূনী (ম.)।
আরো উপস্থিত ছিলেন শাহযাদা মাওলানা মহিউদ্দিন মুহাম্মদ ছালেহ,শাহযাদা মাওলানা নজুম উদ্দিন মুহাম্মদ শামসুল হুদা, শাহযাদা মাওলানা আযম উদ্দিন মুহাম্মদ রেজাউল করিম, শাহযাদা মাওলানা জমির উদ্দীন মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম, মাওলানা আবু আলম ছিদ্দিকি, মাওলানা কাযী শরফুদ্দীন মুহাম্মদ আবু তাহের সহ বহু ওলামায়ে কেরাম, শিক্ষাবিদ ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
বক্তাগন বলেন- নবী (দ.) ঈমান-ইসলাম যা কিছুই দিয়েছেন সমুদয় এর বিনিময়ে আহলে বায়তে রাসূল (দ.)’র ভালবাসা তলবের নির্দেশ স্বয়ং আল্লাহ আল কুরআনে  দিয়েছেন,  বিনিময় না দিয়ে কোন কিছুরই মালিক হওয়া যায় না, সুতরাং আহলে বায়তে রাসূল (দ.)’র ভালবাসা ব্যাতিরেকে ঈমান-ইসলামের দাবি সবই অকার্যকর। মাহফিল থেকে ইয়াজিদের প্রশংসায় মুখর এবং ইয়াজিদিয়্যাতের তোষক-পোষক খতিব-ইমামদের পদচ্যুত করার দাবিও জানানো হয়।

পরিশেষে দাগনভূঞা গাউসিয়া আমিনিয়া সুন্নিয়া মাদ্রাসার সুপার মাওলানা ক্বারী জহির উদ্দিনে (ম.)’র পরিবেশানায় মিলাদ শরীফ ও সভাপতির মুনাজাতের মাধ্যমে মাহফিল সমাপ্ত হয়।